Take a fresh look at your lifestyle.

পরিবারে কারো করোনার লক্ষণ থাকলে সব শিক্ষক-শিক্ষার্থীকে টেস্ট করাতে হবে

55

 

কোন শিক্ষার্থী ও তার পরিবারের কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে বা করোনার লক্ষণ থাকলে ওই শ্রেণিকক্ষের শিক্ষক ও সব শিক্ষর্থী করোনা টেস্ট করাতে হবে। একইসাথে ওই শিক্ষার্থীকে আইসোলেশনে রেখে বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে। আর শিক্ষকদের প্রতিদিন ক্লাসে এসে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সমন্ধে খোঁজ খবর নিতে হবে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে করোনা সংক্রম রোধে নতুন করে শিক্ষকদের জন্য চার দফা নির্দেশনা জারি করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। এসব নির্দেশনা দিয়ে চিঠি সব সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের কাছে পাঠানো হয়েছে। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে চিঠিটি প্রকাশ করা হয়েছে।

এতে অধিদপ্তর বলেছে, গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফের শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুনরায় চালুকরণের জন্য একটি গাইডলাইন, নির্দেশিকা এবং স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) জারি করা হয়েছে। এছাড়াও মনিটরিং চেকলিস্টের মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে দৈনিক ভিত্তিতে তথ্য সংগ্রহ করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ রোধে আরও কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরি।

নির্দেশনায় অধিদপ্তর বলছে, সব শিক্ষক শ্রেণি কক্ষে প্রবেশের পর প্রথমেই শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সম্বন্ধে খোঁজ-খবর নেবেন। শিক্ষার্থীর পরিবারের কেউ করোনা আক্রান্ত বা করোনার কোন লক্ষণ (জ্বর, সর্দি, কাশি ইত্যাদি) আছে কিনা তার খোঁজ নেবেন। কোন শিক্ষার্থী বা তার পরিবারের কেউ করোনা বা করোনার লক্ষণাক্রান্ত হয়ে থাকলে দ্রুত সেই শিক্ষার্থীকে আইসোলেশনে রেখে বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন। প্রতিষ্ঠান প্রধান ওই শ্রেণি কক্ষের শিক্ষক এবং সব শিক্ষার্থীর দ্রুততম সময়ের মধ্যে করোনা টেস্ট করার ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বিষয়টি জানাতে এবং সর্বোচ্চ গুরুত্বের সাথে এ বিষয়ে তদারকি ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা নিশ্চিত করতে মাঠপর্যায়ের আঞ্চলিক পরিচালক-উপপরিচালক এবং জেলা ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

Comments are closed.