মূর্খ জাতি হয়ে গড়ে ওঠার চেয়ে করোনায় মৃত্যুবরণ করা শ্রেয়

0 51

কুরবানীর ঈদের পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে না দিলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম। রোববার (১৮ জুলাই) বিকেলে বরিশাল নগরীর চাঁদমারী ইসলামী আন্দোলনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

ফয়জুল করিম সম্মেলনে বলেন, বর্তমান সরকার করোনার দোহাই দিয়ে স্কুল-কলেজ বন্ধ করে রেখেছেন। অথচ অনেক কিছুই খোলা রয়েছে, যা খোলা থাকার কথা নয়। এভাবে সরকার মূর্খ জাতি তৈরি করছেন। তবে মূর্খ জাতি হিসেবে গড়ে ওঠার চেয়ে করোনায় মৃত্যুবরণ করাই শ্রেয়।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম নায়েবে আমীর, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

সরকারের সমালোচনা করে এ ইসলামিক নেতা বলেন, সরকারের পরিকল্পনা দূরভিসন্ধিমূলক। তারা দেশের মাদরাসাগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। সেখানে পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত-দোয়া হচ্ছে না। পাশাপাশি কয়েকমাস ধরে নিরীহ আলেম-ওলামাদের গ্রেফতার করেছে। অথচ স্বাস্থ্যখাতে যেভাবে লুটপাট হচ্ছে সেই ব্যাপারে সরকারের কোনো মাথাব্যথা নেই। দেশের স্বাস্থ্যখাতে লুটপাটের কারণে পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে। হাসপাতালে রোগীরা বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে, অথচ সরকার স্বাস্থ্যখাতের লুটেরা-দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।

এভাবে আর চলতে দেওয়া যায় না। আমরা এ ঈদ পর্যন্ত অপেক্ষা করব। এরমধ্যে সরকার যদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে না দেয়, নিরাপরাধ আলেম-ওলামাদের মুক্তি না দেয় এবং স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করে তাহলে দেশব্যাপী বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ নাসির আহমেদ কাওছার, মাওলানা জাকারিয়া হামিদী, মাওলানা লুৎফর রহমান, আবদুল্লাহ আল মামুন টিটু প্রমুখ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

Comments
Loading...